মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করার নিয়ম 2024

আমাদের অনেক সময় এনআইডি কার্ড এর তথ্য যাচাই কিংবা নতুন করে অনলাইন কপি বের করার প্রয়োজন হয়। তাই মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা নিয়ে আজকে আপনাদের বিস্তারিত জানানোর চেষ্টা করব।

আপনি কি জানেন আইডি কার্ড বের করতে কি কি লাগে ? এই প্রশ্নের উত্তর যদি আপনার জানা থাকে তবে আপনার জন্য সহজ হবে পুরো বিষয়টি। আইডি কার্ড বের করতে মূলত ৩ টি তথ্যের প্রয়োজন হয়। যার মধ্যে একটি হল জন্ম তারিখ।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা
মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা

জন্ম তারিখ ছাড়াও ভোটার আইডি নম্বর এবং একটি সচল মোবাইল নম্বর এর প্রয়োজন হয়। আপনি চাইলে দেখে নিতে পারেন আইডি কার্ড করতে কি কি কাগজপত্র লাগে

মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা

ভোটার আইডি কার্ড বের করার জন্য মোবাইল নম্বর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা জন্য প্রথমে services.nidw.gov.bd এর ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করতে হবে। তারপর ভোটার স্লিপ নাম্বার কিংবা আইডি কার্ড এর নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। তারপর আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে হবে। মোবাইল নাম্বারে একটি OT কোড যাবে, যার মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ড বের করা যাবে।

পুরো বিষয়টি আসলেই একদম সহজ। আপনাদের সুবিধার জন্য বলি যে, আপনার কাছে যদি আপনার ভোটার আইডি কার্ড নাম্বার কিংবা স্লিপ নাম্বার কিংবা টোকেন নাম্বার না থাকে তবে কখনোই শুধুমাত্র মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা যাবে না।

জেনে নিনঃ স্লিপ নম্বর/ ভোটার নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

তাহলে কি মোবাইল ফোন ব্যবহার করে আইডি কার্ড বের করতে পারবেন না? জি পারবেন, আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়েই নিজেই নিজেই ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন। তাহলে জেনে নিন বিস্তারিত কিভাবে মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা যায়।

  • প্রথমে মোবাইল এর ম্যাসেজ অপশন থেকে টাইপ করতে হবে SC তারপর স্পেস দিয়ে F তারপর ভোটার আইডি কার্ড এর নাম্বার এবং স্পেস দিয়ে D লিখে জন্ম সাল লিখতে হবে। তারপর যেকোনো মোবাইল নাম্বার দিয়ে 105 এ ম্যাসেজ পাঠালে ফিরতি ম্যাসেজে ভোটার আইডি কার্ড এর তথ্য পেয়ে যাবেন। যা দিয়ে সহজেই আইডি কার্ড বের করা যাবে।
নমুনা এস এম এস: SC <space> F <space> 1234567890 <space> D <space> 2001-10-12 Send To 105

আইডি কার্ড বের করার নিয়ম ২০২৪

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর নির্বাচন কমিশন নতুন নীতিমালা প্রকাশ করেছে, যেখানে বলা আছে, কোন বাংলাদেশি নাগরিক থার্ড পার্টি কোন ওয়েবসাইট থেকে আইডি কার্ড বের করতে পারবে না, এমনকি ভুমি মন্ত্রণালয় কিংবা জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট থেকেও না।

তাই মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা জানার পাশাপাশি জানা থাকা উচিত কিভাবে অনলাইনে ঘরে বসে সহজ কিছু ধাপ অনুসরন করে আপনার কাঙ্ক্ষিত ভোটার আইডি ডাউনলোড করবেন। ত চলুন জেনে নেওয়া যাক।

  • প্রথমে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট services.nidw.gov.bd এই লিঙ্কে প্রবেশ করতে হবে।
  • তারপর রেজিস্টার করুন কিংবা আবেদন করুন এই দুইতি অপশন চলে আসবে।
  • আপনার যদি আগে থেকে অ্যাকাউন্ট করা না থাকে তবে রেজিস্টার করুন বাটনে ক্লিক করবেন।
মোবাইল নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করার নিয়ম
মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা
  • তারপর জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর, জন্ম তারিখ এবং কাপচা কোড পূরণ করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • তারপর আপনার বর্তমান ঠিকানা ও স্থায়ী ঠিকানার তথ্য প্রদান করতে হবে। যেমন বিভাগ, জেলা, উপজেলা ইত্যাদি।

এরপর মোবাইল নাম্বার দিতে হবে। অনেকেই এই পদ্ধতিকেই মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা বলে থাকেন।

মোবাইল নম্বর দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান
মোবাইল নম্বর ভেরিফিকেশন

এরপর আপনার মবাইলে একটি ৬ সংখ্যার মোবাইল ভেরিফিকেশন কোড আসবে। সেই কোডটি প্রবেশ করার পর গুগল প্লে স্টোর থেকে NID Wallet আপ ইন্সটল করে আপনার ফেইস ভেরিফিকেশন করতে হবে।

এই সবগুলো ধাপ সেশ করার পর আপনি পুনরায় প্রথম পেজে চলে যাবেন এবং আপনার দেওয়া ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করে নিবেন। লগিন এর পর সহজেই আইডি কার্ড এর তথ্য দেখতে পারবেন।

আরও দেখতে পারেনঃ অনলাইনে আইডি কার্ড ডাউনলোড এর সহজ নিয়ম

ডাউনলোড এর পাশাপাশি আপনি চাইলে আইডি কার্ড এর তথ্য সংশোধন এবং যাচাই এবং নতুন ভোটার এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

NID card correctionজাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন
NID Card Applicationঅনলাইনে নতুন ভোটার আবেদন
NID card checkজাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই

Similar Posts

3 Comments

    1. কোন গুরুত্তপূর্ণ তথ্য শেয়ার এর আগে সচেতন হবেন আসা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *